‘বন্দুকযুদ্ধে’ ডাকাত বাহিনীর প্রধানসহ নিহত ৩

180

 

কল্যাণ ডেস্ক : খুলনায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ডাকাত বাহিনীর প্রধান কালুসহ তিনজন নিহত হয়েছেন। এসময় অপহৃত চার জেলেকে উদ্ধার করা হয়। ঘটনাস্থল থেকে একটি দোনলা বন্দুক, দু’টি দেশি পিস্তল ও চার রাউন্ড গুলি জব্দ করা হয়েছে।
বুধবার দুপুরে জেলার কয়রা উপজেলার সুন্দরবনের কাশিয়াবাদ ফরেস্ট অফিসের ময়দাপেশা খাল এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।
নিহত ডাকাত সদস্যরা হলেন-আবু সাঈদ ওরফে কালু, আসগর আলী ও শহিদুল মল্লিক।
খুলনা জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) এস এম শফিউল্লাহ বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, কয়রা উপজেলা সদর এলাকার বীনাপানি ও তেঁতুলতলা গ্রামের বাসিন্দা জেলে হাবিবুর ফকির, বাবু, ফরিদুল গাজী ও মজিবুর গাজীকে মুক্তিপণের দাবিতে সুন্দরবন থেকে অপহরণ করে বনদস্যু কালু বাহিনী। সুন্দরবনের ভেতরে নিয়ে গিয়ে মুক্তিপণ দাবি করে তারা।
তিনি বলেন, খবর পেয়ে মঠবাড়িয়া ফাঁড়ির আইসি কয়রা থানার পুলিশের একটি টিম নিয়ে তাদের উদ্ধার করতে গেলে কালুবাহিনী পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। পুলিশ আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি ছোড়ে। পুলিশ এসময় ৭৫ রাউন্ড গুলি ছোড়ে। একপর্যায়ে ডাকাত বাহিনীর গুলি ছোড়া বন্ধ হলে সেখানে তল্লাশি চালিয়ে একটি দোনলা বন্দুক, দু’টি দেশি পিস্তল ও চার রাউন্ড গুলি পাওয়া যায়। এ ঘটনায় কালুসহ তিনজন নিহত হয়।
কয়রা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি, তদন্ত) মোস্তফা হাবিবুল্লাহ জানান, ‘বন্দুকযুদ্ধ’ চলাকালে কয়রা থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আজম, কিশোর, সাইদ, এএসই মোস্তফা, কনস্টেবল কাইয়ূম ও আরিফসহ আট পুলিশ সদস্য আহত হন। তাদেরকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

Previous articleগায়ক আসিফ কারাগারে
Next articleবঙ্গবন্ধু-২ স্যাটেলাইট তৈরির প্রস্তুতি শুরু হয়েছে : প্রধানমন্ত্রী