মাশরাফিকে নিয়ে যা বললেন পাপন-দুর্জয়

389

ক্রীড়া ডেস্ক : খেলার মাঠ থেকে মাশরাফির রাজনীতিতে আসা নিয়ে চলছে ব্যাপক সমালোচনা। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নড়াইল-২ আসন থেকে নৌকা প্রতীক বরাদ্দ পেতে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম কিনেছেন বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। রোববার (১১ নভেম্বর) ধানমন্ডির আওয়ামী লীগ রাজনৈতিক কার্যালয়ে সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের হাত থেকে মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেন তিনি।
আসন্ন একাদশ নির্বাচনে সাকিব-মাশরাফি ক্ষমতাশীল দলের হয়ে নির্বাচনে দাঁড়াতে পারেন এমন খবর হয় দেশের সব মিডিয়াগুলোতে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত সাকিব সড়ে দাঁড়ালেও মনোনয়নপত্র কিনেছেন ওয়ানডে দলের অধিনায়ক মাশরাফি।
নির্বাচনের কারণে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজে মাশরাফি খেলবে কি খেলবে না তা নিয়ে দেখা দিয়েছে অনিশ্চয়তা। তবে সুযোগ পেলে মাশরাফি খেলবেন এমনটাই জানিয়েছেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন।
মাশরাফির বিষয়ে পাপন বলেন,এটা তো কঠিন প্রশ্ন কিন্তু ওয়ার্ল্ড কাপে মাশরাফিকে পাওয়া যাবে আমি যতদূর জানি। আসলে হয়েছি কি, ওর (মাশরাফির) ইস্যুটার টাইমিংটা দেখেন। ওর নির্বাচনের নমিনেশনের সাব মিটের একটা ডেট আছে । কবে তুলবে, কবে ফিল আপ করবে ? ওখানে কোন প্রোগ্রাম করবে কি না সেটাও আমি জানি না।কিন্তু আজকে মাশরাফির সাথে আমার দেখা হবে । মনে হয় হবে। দেখা হওয়ার সম্ভাবনা আছে। তার পর আমি ডিটেলস জানতে পারবো। যদি সুযোগ থাকে তাহলে মাশরাফি অবশ্যই খেলবে এটা আমার ধারণা। যদি এক দিনের জন্যই ইনস্পিয়ার করার সুযোগ থাকে তাহলে ও খেলবে। খেলাটা মাশরাফির কাছে সুডবি প্রায়ওটি।
রাজনীতির কারণে ক্রিকেটে এর প্রভাব পড়বে বলে মনে করেন সাবেক অধিনায়ক নাঈমুর রহমান দুর্জয়। তিনি বলেন, প্রভাবতো পড়বেই। তবে ক্রিকেটে মাশরাফির শেষ দেখে ফেলেছেন বিসিবি সভাপতি। তার মতে, বিশ্বকাপ খেলেই অবসরে যেতে পারেন মাশরাফি। ফলে তার রাজনীতি করতে কোনো সমস্যা নেই। বিশ্বকাপের পরে হয়তো মাশরাফি অবসরে যাবে। এমপিদের অনেক কাজ। দুইটা আসলে একসঙ্গে করা সম্ভব নয়। যেকোনো একটি বেছে নিতে হবে।
দুর্জয় আরো বলেন, আমি যখন ক্যাপ্টেন ছিলাম তখন মাশরাফি দলে এসেছিল। রাজনীতিতেও মাশরাফি ভালো করুক, সফল হোক আমি সেটাই চাই।
মাশরাফিকে নিয়ে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ বলেন, ইনশাআল্লাহ মাশরাফি ভাইকে পাবো। আশা করি মাশরাফি ভাইকে আমরা খেলায় পাবো। উনাকে আমরা চাই। উনি আমাদের ওয়ানডে অধিনায়ক। মাশরাফি ভাই যদি সুস্থ্য থাকেন তাহলে আমরা তাকে মাঠে পাবো।
#
সাকিবকে ধরে রাখল হায়দ্রাবাদ

ক্রীড়া ডেস্ক : ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের পরবর্তী আসর শুরু হবে আগামী বছর মার্চ থেকে। এরই মধ্যে নিলামের প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছে ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলো।
গেল আসরে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের হয়ে খেলেছিলেন মোস্তাফিজুর রহমান। তবে আগামী আসরকে সামনে রেখে বাংলাদেশের এই কাটার মাস্টারকে ছেড়ে দিয়েছে তারা। তবে সাকিব আল হাসানকে ধরে রাখল সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ।
আইপিএলে নিজের প্রথম সাত মৌসুম কলকাতা নাইট রাইডার্সের হয়ে খেলেছিলেন সাকিব। গেল আসরের আগে তাকে ছেড়ে দেয় কলকাতা। পরে নিলামে ২ কোটি রূপিতে দলে ভেড়ায় হায়দ্রাবাদ। হায়দ্রাবাদের হয়ে ওই আসরে ব্যাট হাতে করেন ২৩৯ রান ও বল হাতে নেন ১৪ উইকেট সাকিব।
এদিকে সাকিব ছাড়াও অস্ট্রেলিয়ার সাবেক সহ অধিনায়ক ডেভিড ওয়ার্নারকেও ধরে রেখেছে দলটি। যদিও বল ট্যাম্পারিং কেলেঙ্কারির কারণে গত আসরে খেলতে পারেননি ওয়ার্নার।

Previous articleযাত্রীর চাইতে মাল্লামাঝি বেশি, সাবধান কর্ণধার
Next articleখাশোগিকে টুকরো টুকরো করার কথা স্বীকার সৌদির