কলকাতায় প্রথম মুসলিম মেয়র নিয়োগ মমতার

203

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : স্বাধীনতা লাভের পর এই প্রথম কলকাতায় কোন মুসলিম মেয়র হিসেবে নিয়োগ পেতে যাচ্ছে। নতুন এই মেয়র হতে যাচ্ছেন ফিরহাদ হাকিম। বর্তমানে পশ্চিমবঙ্গের পৌর ও নগর উন্নয়ন মন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন তিনি। খবর দ্য উইকের।
কলকাতার সাবেক মেয়র ও মন্ত্রী শোভন চট্টোপাধ্যায় ২০ নভেম্বর রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ভর্ৎসনার মুখে মেয়র ও মন্ত্রী হিসেবে পদত্যাগ করেন। এরপর তার জায়গায় নতুন মেয়র হিসেবে ফিরহাদকে নিয়োগ দেওয়ার ঘোষণা দেওয়া হয়।
এদিকে ডেপুটি মেয়রের পদেও রদবদল আনছেন মমতা। বর্তমান ডেপুটি মেয়র ইকবাল আহমেদকে সরিয়ে তার জায়গায় মেম্বার মেয়র-ইন-কাউন্সিল(এমএমআইসি) সদস্য অতিন ঘোষকে বসানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি।
দেশ বিভাগের আগে কলকাতার সর্বশেষ মুসলিম মেয়র ছিলেন সাইদ মোহাম্মদ উসমান। তিনি ছিলেন এ.কে. ফজলুল হকের বেঙ্গল প্রজা পার্টির সদস্য।
প্রসঙ্গত, শোভন বর্তমানে ব্যক্তিগত জীবনে বেশ ঝামেলার মধ্যে রয়েছেন। স্ত্রীর সঙ্গে তার তালাকের মামলা চলছে। এর মধ্যে নতুন করে এক অধ্যাপিকার সঙ্গে তার সম্পর্কের গুঞ্জন শোনা গেছে। এসব ঘটনা ছড়িয়ে পড়ার পরই তাকে ভর্ৎসনা করেন মমতা।
বৃহস্পতিবার পৌরসভার কাউন্সিলরদের এক বৈঠকে মেয়র ও ডেপুটি মেয়রের পদে যথাক্রমে হাকিম ও ঘোষের নাম প্রস্তাব করা হয়। বৈঠকে মমতাও উপস্থিত ছিলেন।
তিনি জানান, শোভনের পদত্যাগ গৃহীত হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে মেয়র-ইন-কাউন্সিলেরও মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে। তবে এখনই তা পাল্টানো হবে না। মেয়র নির্বাচন আইনি পদ্ধতি মেনেই হবে। যদিও ডেপুটি মেয়র মনোনয়নের মাধ্যমেই হয়।
মমতা বলেন, আমরা দলীয় ভাবে লিডার এবং ডেপুটি লিডারের নাম ঘোষণা করলাম। এরপর মেয়র নির্বাচনের মাধ্যমেই হবে। ডেপুটি মেয়র মনোনীত করা
হবে। সেটা হতে ৭-১০ দিন সময় লাগবে। তার পরেই মেয়র ইন কাউন্সিল বৈঠক করে ঠিক করবেন নতুন মেয়র এবং ডেপুটি মেয়র।
সারাবাংলা/ আরএ

Previous articleদ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাটিং বিপাকে বাংলাদেশ
Next articleগণভবনের সামনে প্রয়াত খান টিপু সুলতানের স্ত্রী জেসমিনের সমর্থকদের শ্লোগান