মধু দা’কে নিয়ে সিনেমার মহরত হলো মধুর ক্যান্টিনে

472

 

বিনোদন ডেস্ক : পরিচালক সাইদুর রহমান সাইদ ‘মধুর ক্যান্টিন’ নামে চলচ্চিত্র নির্মাণ করছেন। ছবিতে অভিনয় করবেন নায়ক ওমর সানী, নায়িকা মৌসুমী, সোহানা সাবা। রোববার [২৫ নভেম্বর] বিকেলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যান্টিনে ছবির মহরত অনুষ্ঠানে পরিচালক এসব তথ্য জানান।

মহরত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. আখতারুজ্জামান, নায়ক ওমর সানী, নায়িকা মৌসুমী ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি রেজওয়ানুলক হক চৌধুরী শোভন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন প্রমুখ।

পরিচালক সাইদুর রহমান সাইদ বলেন, ‘আমি ’৬৬ সাল থেকে ৭১ পর্যন্ত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক শিক্ষার্থী ছিলাম । তৎকালীন ইকবাল হলে থাকতাম। মধুদা আমার পিতৃতুল্য ছিলেন। আমার বাবা আমাকে তার হাতে তুলে দিয়ে যান। ৭১ সালের ২৬ মার্চ মধুদা’কে সপরিবারে হত্যা করা হয়। আমি তার স্মৃতি ধারণ করে এবং তা নতুন প্রজন্মের কাছে তুলতে ধরতে এই চলচ্চিত্র বানাচ্ছি।’

নায়ক ওমর সানী বলেন, আমার হাত ধরে অনেকেই চলচ্চিত্রে এসেছে। তারা অনেকেই জাতীয় পুরষ্কার পেয়েছে। কিন্তু কোনো না কোনো কারণে আমার জাতীয় পুরষ্কার পাওয়া হয়নি। এই চলচ্চিত্রের মাধ্যমে কিছু একটা করতে চাই।

নায়িকা মৌসুমী জানান, তিনি এই ছবিতে সাংবাদিকের ভূমিকায় অভিনয় করবেন। ছবিতে তিনি তার বীরঙ্গনা মাকে খোঁজার জন্য দেশে আসবেন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. মো. আখতারুজ্জামান বলেন, ‘মহান মুক্তিযুদ্ধে অবদানের জন্য ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়কে নিয়ে বিভিন্ন নাটক-সিনেমা হয়েছে। কিন্তু মধুর ক্যান্টিনকে নিয়ে কোনো সিনেমা হয়নি। সাইদুর রহমান সাইদ প্রথম মধুর ক্যান্টিন নিয়ে একটি সিনেমা তৈরি করার ধারণা দিয়েছেন। তার নির্দেশনাই এটি পরিচালিত ও নির্মিত হবে।’

প্রসঙ্গত, ছাত্র রাজনীতির আতুরঘরখ্যাত মধুর ক্যান্টিনের প্রতিষ্ঠাতা ছিলেন মধুসূদন দে। তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তান, এবং পরবর্তীতে স্বাধীন বাংলাদেশে ছাত্র আন্দোলনের কেন্দ্রবিন্দু হিসাবে মধুর ক্যান্টিন সুপরিচিত। মধুসূদন দে, মধুদা নামেই সমধিক পরিচিত ছিলেন। ১৯৭১ সালের ২৬শে মার্চ তারিখে পাকিস্তান সেনাবাহিনী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রদের উপরে যে হামলা শুরু করে, তার অংশ হিসাবে মধুর ক্যান্টিনে হানা দেয় এবং মধুসূদন দে ও তার পুত্রকে গুলি করে হত্যা করে।

https://www.facebook.com/officialomarsani/videos/1951558531579572/?t=33

Previous articleবিশ্বকাপের সেরা দলে বাংলাদেশের জাহানারা
Next articleবিজয়ের মাসে স্বাধীনতা কাপ