সুন্দরবনের অভয়ারণ্যে মৃত বাঘ!

202

বাগেরহাট জেলা প্রতিনিধি : সুন্দরবন থেকে একটি রয়েল বেঙ্গল টাইগারের মরদেহ উদ্ধার করেছে বন বিভাগ। পূর্ব সুন্দরবন বিভাগের শরণখোলা রেঞ্জের চাপড়াখালী এলাকায় বনের মধ্য থেকে বাঘের মরদেহটি উদ্ধার করে বন বিভাগ। উদ্ধার হওয়া মরদেহটি বাঘিনির এবং সাত ফুট লম্বা।
বুধবার দুপুরে পূর্ব সুন্দরবনের শরণখোলা রেঞ্জ কার্যালয়ে বাঘের মরদেহটি আনা হয়েছে। মরদেহের ময়না-তদন্তের জন্য কাজ শুরু করেছে প্রাণিসম্পদ বিভাগ।
এর আগে মঙ্গলবার দুপুরে সুন্দরবন থেকে মরদেহ উদ্ধার করা হয়। তবে বিষয়টি বুধবার দুপুরেই গণমাধ্যমকর্মীদের অবহিত করা হয়।
সুন্দরবন পূর্ব বন বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মাহমুদুল হাসান বলেন, চাপড়াখালী এলাকায় টহলের সময় বনরক্ষীরা বাঘের মরদেহটি দেখতে পায়। পরে উদ্ধার করে শরণখোলা রেঞ্জ কার্যালয়ে নিয়ে আসে। আমরা শরণখোলা ও মোরেলগঞ্জ উপজেলার দু’জন প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তার সমন্বয়ে বাঘটির ময়না-তদন্তের কাজ শুরু করেছি। এছাড়া বাঘটির কিছু অঙ্গ প্রত্যঙ্গ সংগ্রহ করে বন বিভাগের ফরেনসিক ল্যাবে পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে। পরীক্ষা শেষ মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে।
তিনি আরও বলেন, মৃত বাঘটির চামড়া আমরা সংরক্ষণ করব। দেহটি শরণখোলা রেঞ্জ কার্যালয়ের ভেতরে মাটিচাপা দেওয়া হবে।
এদিকে সুন্দরবনে মৃত বাঘ পাওয়ায় শঙ্কা প্রকাশ করেছেন সচেতন মহল।
এ বিষয়ে সেভ দ্যা সুন্দরবন ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান ড. ফরিদুল ইসলাম বলেন, সুন্দরবনের বিভিন্ন খালে বিষ প্রয়োগ করে মাছ ধরা বন্ধ করতে হবে। বিষক্রিয়ার ফলে নদী ও খালের পানি বিষযুক্ত থাকে। ফলে শুধু মাছ নয় অন্যান্য প্রাণীও ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে। বাঘটি এর প্রভাবেও মারা যেতে পারে।
তবে বাঘটির মারা যাওয়ার সঠিক কারণ উদঘাটন করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ জানান তিনি।
এছাড়া সুন্দরবনের যে জীববৈচিত্র্য রয়েছে তা টিকিয়ে রাখতে হবে। কোনো একটি প্রাণী সুন্দরবন থেকে বিলুপ্ত হলে বাস্তুসংস্থান সংক্রান্ত ভারসাম্য নষ্ট হয়ে যাবে। এ জন্য সুন্দরবন ও বনের প্রাণীদের প্রতি সবাইকে আরও যতœবান হওয়ার আহ্বান জানান তিনি।

LEAVE A REPLY