আফগান-স্পিনে দিশেহারা বিসিবি একাদশ

0
99

ক্রীড়া ডেস্ক : একমাত্র টেস্টের আগে দুই দিনের প্রস্তুতি ম্যাচে চট্টগ্রামের এমএ আজিজ স্টেডিয়ামে বিসিবি একাদশের বিপক্ষে প্রথম ইনিংসে ৯ উইকেটে ২৮৯ রান করে ইনিংস ঘোষণা করে আফগানিস্তান। জবাবে ব্যাট করতে নেমে দুই স্পিনার জহির খান আর রশিদ খানের স্পিন বোলিংয়ে পথ হারিয়েছে বিসিবি একাদশ। প্রথম ইনিংসে ১২৩ রানে অল আউট হয়ে গেছে তারা।
আল আমিনের ঘূর্ণিতে গত দিন পথ হারিয়েছিল আফগানরা। সে হিসাব একদম সুদে-আসলে চুকিয়ে দিলেন জহির খান আর রশিদ খান। গতকাল উল্টো আফগান-স্পিনে দিশেহারা বিসিবি একাদশের ব্যাটসম্যানরা। ১২৩ রানে গুটিয়ে গেছে তারা।
বাংলাদেশের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টের আগে নিজেদের ঝালিয়ে নিচ্ছে আফগানিস্তান। চট্টগ্রামের এমএ আজিজ স্টেডিয়ামে দুই দিনের প্রস্তুতি ম্যাচে বিসিবি একাদশের মুখোমুখি হয়েছে তারা। টস জিতে ব্যাট করতে নেমে আফগানদের শুরুটা হয়েছিল দারুণ। কিন্তু আল আমিনের ঘূর্ণিতে এলোমেলো হয়ে পড়ে সফরকারীরা। আল আমিনের সঙ্গে সুমন খানের কার্যকরী মিডিয়াম পেস মিলিয়ে আফগানদের বেশি রান করতে দেয়নি বিসিবি একাদশ। ৯ উইকেটে ২৮৯ রান করে ইনিংস ঘোষণা করে তারা।
কিন্তু যে উইকেটে আল-আমিন আলো ছড়াতে পারবেন, সে পিচের সুবিধা আফগান স্পিনাররা নেবেন না, তা কী করে হয়! সেটিই হয়েছে। বাঁ হাতি চায়নাম্যান বোলার জহির খানের সঙ্গে দলের অধিনায়ক রশিদ খানের লেগস্পিনে গোটা প্রথম ইনিংস জুড়ে হাঁসফাঁস করেছে বিসিবি একাদশের ব্যাটসম্যানরা। ১১.৩ ওভার বল করে ২৪ রান দিয়ে ৫ উইকেট নিয়েছেন জহির খান। ৮ ওভার বল করে ২৬ রান দিয়ে ৩ উইকেট নিয়েছেন রশিদ খান। এই দুজনের তোপে ১২৩ রানেই থেমে গেছে বিসিবি একাদশের ইনিংসের চাকা। বল হাতে সফল সেই আল-আমিনই ছিলেন দলের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক, ২৯ করেছেন তিনি। এনামুল হক, নাঈম হাসান ও নুরুল হাসানদের কেউই কুড়ি ছাড়ানো স্কোর করতে পারেননি। ১৬ রানে প্রথম উইকেট হারানো বিসিবি একাদশ নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারিয়েছে। কেউই তেমন কোনো জুটি গড়ে তুলতে পারেননি।
এর মধ্যে নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করা শুরু করে দিয়েছে আফগানিস্তান। প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত ৪ ওভারে বিনা উইকেটে ১৪ রান করেছে তারা।

LEAVE A REPLY