শৈত্যপ্রবাহ শুরু হচ্ছে

182

কল্যাণ ডেস্ক : পৌষের শুরুতেই একদিনের ব্যবধানে ১ থেকে ২/৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস কমেছে দেশের তাপমাত্রা। এতে শৈত্যপ্রবাহের তাপমাত্রার এককের ঠিক কাছাকাছি চলে এসেছে মিটারের পারদ।
বুধবার রাতে আরো ১-৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা কমে দেশের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যেতে পারে বলে আভাস দিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।
এদিন সকাল থেকেই দেশের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের মতো ঢাকাতেও শীত বেশি অনুভূত হতে শুরু করেছে। কুয়াশার সঙ্গে উত্তর-পশ্চিম দিক থেকে আসা বাতাসে মোটা কাপড় গায়ে জড়িয়ে বেরিয়েছেন রাজধানীবাসী।
অধিদপ্তরের আবহাওয়াবিদ আফতাব উদ্দিন বলেন, ঢাকায় সর্বনিম্ন ১৬ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে বুধবার (১৮ ডিসেম্বর)। আগের দিন (১৭ ডিসেম্বর) যা ছিল ১৭ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস।
তিনি বলেন, উত্তর-পশ্চিম দিক থেকে আসা বাতাস এবং কুয়াশার কারণে তাপমাত্রা বাড়তে পারেনি। এজন্য শীত অনুভূত হচ্ছে। আর তাপমাত্রা কমে যাওয়ায় জলীয় বাষ্পের সঙ্গে ধুলিকণার সংমিশ্রণে ঘন কুয়াশার তৈরি হয়েছে।
সাধারণত দৃষ্টিসীমা ২০০ মিটারের নিচে নেমে এলে তাকে ঘন কুয়াশা বলেন আবহাওয়াবিদেরা।
আফতাব উদ্দিন আরো বলেন, তাপমাত্রা রাতের মধ্যে আরো কমতে পারে। ফলে শৈত্যপ্রবাহ শুরু হতে পারে দেশের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে।
শৈত্যপ্রবাহকে তিন ভাগে ভাগ করে আবহাওয়াবিদেরা তাপমাত্রা ৮-১০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে এলে মৃদু, ৬-৮ ডিগ্রির মধ্যে এলে মাঝারি এবং ৪-৬ ডিগ্রির মধ্যে এলে তীব্র শৈত্যপ্রবাহ বলে থাকেন।
বুধবার দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা কুড়িগ্রামের রাজারহাটে ১০ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে। ফলে ১-২ ডিগ্রি সেলসিয়াস কমে গেলেই মৃদু শৈত্যপ্রবাহ শুরু হবে; যা রাত থেকেই শুরু হবে বলে জানান আবহাওয়াবিদ আফতাব উদ্দিন।
আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ সারাদেশের আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে। শেষরাত থেকে সকাল পর্যন্ত দেশের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে মাঝারি থেকে ঘন কুয়াশা এবং দেশের অন্যত্র কোথাও কোথাও হালকা থেকে মাঝারি ধরনের কুয়াশা পড়তে পারে।
সারাদেশে রাতের তাপমাত্রা ১-৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস কমতে পারে এবং দিনের তাপমাত্রাও সামান্য হ্রাস পেতে পারে। পরবর্তী তিন দিনের আবহাওয়ার অবস্থায় বলা হয়, এই সময়ে দেশের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যেতে পারে।
আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, ঢাকায় উত্তর/উত্তর-পশ্চিম দিক থেকে ঘণ্টায় ৮-১২ কিলোমিটার বেগে বাতাস বয়ে যেতে পারে। ফলে শীত অনুভূত হবে আরো বেশি।
গত ২৪ ঘণ্টায় দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা কুড়িগ্রামের রাজারহাটে ১০ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হযেছে। রাজশাহীতে সর্বনিম্ন ১১ দশমিক ৪ ডিগ্রি, শ্রীমঙ্গলে ১১ দশমিক ৭ ডিগ্রি, ঈশ্বরদীতে ১১ দশমিক ৮ ডিগ্রি, বদলগাছীতে ১১ দশমিক ৬ ডিগ্রি, তাড়াশে ১২ দশমিক ২ ডিগ্রি, রংপুরে ১৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়।
বিভাগীয় শহর ময়মনসিংহে ১৩ ডিগ্রি, খুলনায় ১৫ ডিগ্রি, বরিশালে ১৪ দশমিক ৫ ডিগ্রি, ঢাকায় ১৬ দশমিক ২ ডিগ্রি, চট্টগ্রামে ১৬ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস সর্বনিম্ন তাপমাত্রা পেয়েছে আবহাওয়া অফিস।
আফতাব উদ্দিন জানান, ডিসেম্বর ১-২টি মৃদু, জানুয়ারিতে ২-৩টি মৃদু থেকে মাঝারি এবং ২টি তীব্র এবং ফেব্রুয়ারিতে ১টি মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যেতে পারে।
বছরের তীব্র (৪-৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস) শৈত্যপ্রবাহ জানুয়ারির প্রথমার্ধে বয়ে যেতে পারে বলে জানান আবহাওয়াবিদ আফতাব উদ্দিন।

Previous articleসাধারণ সম্পাদক পদ নিয়ে আশা-চিন্তার দোলাচলে যারা
Next articleব্যক্তিগত চিকিৎসকদের স্বাস্থ্য পরীক্ষায় যেতে দেওয়া হচ্ছে না জীবন-মৃত্যুর ভয়াবহ সংকটে রয়েছেন খালেদা জিয়া : বিএনপি

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here