বলিউডে যাদের সম্পর্ক ভাঙল, যাদের গড়ল; ফিরে দেখা ২০১৯

132

বিনোদন ডেস্ক : আর দু’দিন পরই নতুন বছর ২০২০ শুরু হচ্ছে। সম্পর্কের ক্ষেত্রে ২০১৯ সালে বলিউড সেলিব্রেটিদের মধ্যে অনেক রদবদল ঘটেছে। অনেকেরই সম্পর্ক ভেঙে গেছে। আবার নতুন সম্পর্কে আবদ্ধ হয়েছেন কেউ কেউ। ফিরে দেখা যাক ২০১৯ সালের ভাঙাগড়ার খেলা।
রণবীর কাপুর এবং আলিয়া ভাট
প্রথম প্রথম তাঁদের সম্পর্ক নিয়ে প্রচুর জল্পনা-কল্পনা ছিল। কিন্তু কাপুর পরিবারে যেভাবে আলিয়ার পদার্পণ ঘটেছে এবং তাদের পরিবারের ছবিতেও যেভাবে আলিয়া নিজের জায়গা পাকা করে নিয়েছেন, তাতে জল্পনার আর কিছু অবশিষ্ট রইল না। ২০২০ সালেই তাদের চার হাত এক হবে বলে আশা করছেন অনেকেই।
অর্জুন কাপুর-মালাইকা অরোরা
মালাইকা অরোরার সঙ্গে একদিকে যেমন বিচ্ছেদ হয়েছে আরবাজ খানের, অন্যদিকে মালাইকার জীবনে এসেছে নতুন প্রেম। অর্জুন কাপুর।
ফারহান আখতার-শিবানি দান্ডেকর
জুটিটি কখনো প্রকাশ্যে নিজেদের সম্পর্কের কথা স্বীকার করেনি। তবে তাদের একসঙ্গে ছুটি কাটানোর ছবি সব স্পষ্ট করে দিয়েছে।
কার্তিক আরিয়ান-অনন্যা পাণ্ডে
‘পতি পত্নি অউর ও’ সিনেমায় কার্তিকের প্রেমিকা হয়েছিলেন অনন্যা। কিন্তু স্ক্রিপ্টের বাইরেও তাদের আলাদা কিছু লেখা ছিল মনে হয়। সারা-পর্ব পেছনে ফেলে চুটিয়ে ডেট করছেন দু’জনে।
সুশান্ত সিংহ রাজপুত-রিয়া চক্রবর্তী
কৃতী শ্যাননের সঙ্গে বিচ্ছেদের পর ২০১৯ সালে অভিনেত্রী রিয়া চক্রবর্তীর সঙ্গে নতুন সম্পর্কে আবদ্ধ হয়েছেন সুশান্ত।
আরবাজ খান-জর্জিয়া আন্ড্রিয়ানি
মালাইকা অরোরার সঙ্গে বিচ্ছেদের পর শুধু যে মালাইকাই নতুন সঙ্গী খুঁজে পেয়েছেন তা কিন্তু নয়, আরবাজও নতুন প্রেমিকা খুঁজে নিয়েছেন।
হুমা কুরেশি-আজিজ
নায়িকা এবং পরিচালকের এই জুটি সবার কাছে বিস্ময়ের ছিল। হুমা কুরেশি হলিউড ওয়েব সিরিজ শুটিংয়ে ব্যস্ত আর মুদাসসির আজিজ লখনৌতে রয়েছেন শুটিং উপলক্ষে। দু’জনের পথ যে কখন, কিভাবে ক্রস করল বুঝে ওঠাই গেল না।
এত গেল সম্পর্ক জোড়ার খবর। একটা নতুন সম্পর্ক জুড়তে গেলে, অনেক সময় পুরনো সম্পর্ক ভাঙার প্রয়োজন হয়। ২০১৯ সালে যেমন নতুন সম্পর্ক গড়েছে, ভেঙেছেও। এবার দেখে নেওয়া যাক বলিউডে যাদের বিচ্ছেদ হলো-
কার্তিক আরিয়ান-সারা আলি খান
অনন্যা পাণ্ডের সঙ্গে সম্পর্কের আগে সারা আলি খানের সঙ্গে তার নাম জড়িয়েছিল। যদিও দু’জনে এই সম্পর্ক নিয়ে কোনোদিনই প্রকাশ্যে কিছু বলেননি।
অর্জুন রামপাল-মেহের জেসিয়া
২০১৮ সালে বিবাহ বিচ্ছেদের কথা ঘোষণা করেছিলেন তারা। বিয়ের ২০ বছর একসঙ্গে কাটানোর পর ২০১৯ সালের নভেম্বরে তাদের বিচ্ছেদ হয়।
ইমরান খান-অবন্তিকা মালিক
২০১৯ সালের সেপ্টেম্বরে ইমরানের বাড়ি ছেড়ে ছোট মেয়েকে নিয়ে বেরিয়ে যান অবন্তিকা। তাদের সম্পর্কের ভাঙন নিয়ে অনেক জল্পনা রয়েছে। একাংশ মনে করে, ইদানীং হাতে কোনো কাজ নেই ইমরানের। পরিবারের আর্থিক সঙ্কটের কারণে তাদের মধ্যে যত অশান্তি হচ্ছিল। সে কারণে বিচ্ছেদের পথে হাঁটেন তারা।
দিয়া মির্জা-সাহিল সাংঘা
২০১৪ সালে দিয়া বিয়ে করেন তার দীর্ঘ দিনের ব্যবসায়িক পার্টনার ও প্রেমিক সাহিলকে। বিয়ের আগে অনেকদিন তারা লিভ-ইনও করেছেন। বলিউডের আদর্শ দম্পতি হিসেবে দিয়া-সাহিলের কথা উল্লেখ করা হত। কিন্তু সেই সম্পর্কেও ভাঙন ধরে ২০১৯ সালে।
মধু মন্টেনা-মাসাবা গুপ্ত
ফ্যাশন ডিজাইনার মাসাবা গুপ্ত ২০১৫ সালে গাঁটছড়া বাঁধেন প্রযোজক মধু মন্টেনার সঙ্গে। কিন্তু ২০১৯ সালে দু’জনেই বিচ্ছেদের জন্য আবেদন করেন।

Previous articleপ্রিয়াঙ্কা গান্ধীকে পুলিশের হেনস্থা
Next articleজয়ের লক্ষ্যে কাল মাঠে নামছে যমুনা ব্যাংক ঢাকা প্লাটুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here