অস্ট্রেলিয়ার দাবানলের ভয়াবহতা বলছে ছবিটি

115

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : অস্ট্রেলিয়ায় জাতীয় সংকটে রূপ নিয়েছে দাবানল। গতবছরের সেপ্টেম্বর থেকেই জ্বলছে দেশটির শহর থেকে শুরু করে প্রত্যন্ত গ্রামের বিস্তীর্ণ এলাকা। ঘরবাড়ি ছাড়তে হয়েছে কয়েক লাখ মানুষকে, নিহত হয়েছেন কমপক্ষে ২৩ জন। ধ্বংস হয়ে গেছে প্রায় দেড় হাজার ঘরবাড়ি।
দাবানলের অপ্রতিরোধ্য গতি থামাতে দেশটি ইতোমধ্যে ৩ হাজার সেনা মোতায়েনের সিদ্ধান্ত নেয়। কিন্তু এর আগেই প্রাকৃতিক এ দুর্যোগ প্রাণ কেড়ে নিয়েছে ৫০ কোটি প্রাণীর।
অস্ট্রেলিয়ার পূর্ব ও দক্ষিণ উপকূলে আগুন এখনো আগুন জ্বলছে। আর এ দাবানলে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে বনের পশু-পাখিরা। এ নিয়ে দেশটির মানুষের পাশাপাশি চিন্তিত বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের পরিবেশবিদরাও। তারা মানুষের পাশাপাশি প্রাণীদের নিরাপত্তার বিষয়ে সোচ্চার হয়েছেন সামাজিক যোগাযোগের বিভিন্ন মাধ্যমে।
ইনস্টাগ্রামে ভেটপাও নামের একটি অ্যাকাউন্ট থেকে পোস্ট করা হয় কাঁটাতারে ঝুলন্ত একটি বাচ্চা ক্যাঙারুর। আগুনের হাত থেকে নিজেকে বাঁচাতে পারেনি সে। ওই ছবিটির ক্যাপশনে লেখা হয়, এ সংকট বাস্তব। এই বাচ্চা ক্যাঙারুটি আগুনের হাত থেকে বাঁচার চেষ্টায় হয়তো পালিয়ে যাচ্ছিল। কিন্তু সে পথেই কাঁটাতারের বেড়ার মধ্যে আটকে গেছে।
অস্ট্রেলিয়ার নিউ সাউথ ওয়েলসের একজন খামির স্টিভ শিপটন। তার খামারের বহু গরু পুড়ে মারা গেছে আগুনে।
আগুনে পুড়ে মারা যাওয়া ক্যাঙারুকে দেখছে অস্টেলিয়ার ম্যালাকুটা শহরের এক তরুণী।
এদিন অস্ট্রেলিয়ায় তাপমাত্রা ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের কাছাকাছি, বইছে ঝড়ো হাওয়া। দাবানল যেভাবে ছড়িয়ে পড়ছে তাতে শনিবার দেশটির জন্য হতে পারে ‘বিপজ্জনক দিন’।

LEAVE A REPLY