আমার সাংবাদিকতা ও দৈনিক কল্যাণের অগ্রযাত্রা

0
172

আব্দুল ওয়াহাব মুকুল
ঐতিহ্যের গৌরবদীপ্ত প্রাচিন শহর যশোরে ১৯৮৫ সালের ১৫ ফেব্রয়ারি থেকে প্রকাশিত দৈনিক কল্যাণ আজ ৩৫ বছর পূরণ করে ৩৬ বর্ষে পা রাখলো। ‘বস্তুনিষ্ঠতাই যার অহংকার’ বস্তুনিষ্ঠ সাংবাদিকতায় পাঠক ও শুভানুধ্যায়ী মহলের ভালোবাসায় সিক্ত হয়ে দৈনিক কল্যাণের কুসুমাস্তীর্ণ পথচলায় আজ আমরা ধন্য।
দৈনিক কল্যাণ স্বাধীনতা, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা, মুক্তচিন্তা, প্রগতি, গণতন্ত্র, অসাম্প্রদায়িকতাসহ মানুষের মৌলিক অধিকার প্রতিষ্ঠার পক্ষে। তাইতো মৌলবাদ, জঙ্গীবাদ, সন্ত্রাসবাদ, নাশকতার বিরুদ্ধে দৈনিক কল্যাণের দৃঢ় অবস্থান আজও সুসংহত। যশোরের ইতিহাস-ঐতিহ্য, কৃষ্টি-কালচার, শিল্প-সাহিত্য, শিক্ষা-সংস্কৃতি, ক্রীড়া-বিনোদন, মানুষের দুঃখ-কষ্ট, হাসি-কান্না, আনন্দ-বেদনা, সমস্যা-সম্ভাবনার নিখুঁত চিত্র আঁকার চেষ্টায় সদা সচেষ্ট দৈনিক কল্যাণ।
আজ থেকে ৩৩ বছর আগে নতুনত্বের স্বাদে ভরা দৈনিক কল্যাণ পত্রিকার মাধ্যমে সাংবাদিকতা পেশায় আমার পথচলা শুরু হয়। দৈনিক কল্যাণের মালিক ও সম্পাদক এবং বৃহত্তর যশোরের বস্তুনিষ্ঠ সাংবাদিকতা তথা সাংবাদিক তৈরির কারিগর বীর মুক্তিযোদ্ধা একরাম-উদ-দ্দৌলার প্রতিশ্রুতি অনুয়ায়ী হলুদ সাংবাদিকতাকে পরিহার করে চলেছি মাটি ও মানুষের কল্যাণে। তারই প্রেরনায় ইতি পূর্বে দৈনিক সমাজের কথা পত্রিকার প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক হিসেবে অভিশিক্ত হই। পরিস্থিতি মূল্যায়নে পাঠক দক্ষ বিশ্লেষক। তাই তাদেরই কল্যানে একচোখা নীতি পরিহার করে তথ্যের প্রবাহ সৃষ্টিতে সংকল্পবদ্ধ এবং সাধ্যের সীমায় তা করে চলেছি।
একরাম-উদ-দ্দৌলার কাছ থেকে শিখেছি কোনোক্রমেই স্বাধীনতা বিরোধী শক্তির সঙ্গে আপোষে বিশ্বাসী না থেকে স্বাধীনতার চেতনা সমুন্নত রাখতে অঙ্গীকারাবদ্ধ থাকতে হবে। শিখেছি প্রগতি বিরোধী যে মহলটি পবিত্র ধর্মের অপব্যাখ্যা করে দেশ ও দেশের মানুষকে পেছনে ঠেলে দিতে চায় তাদের বিপক্ষে থেকে মুক্তচিন্তা বিকাশের পক্ষে মানবিক গুনাবলীর বিকাশ ও বিস্তারে ক্লান্তিহীনভাবে কাজ করে যেতে হবে। জঙ্গীবাদ, সন্ত্রাসবাদ ও নাশকতা সৃষ্টিকারীদের সমূলে উৎখাত করতে মেধার সবটুকু ব্যয় করলে পিছু টান কেহ রুখতে পাবে না।
আমি একরাম-উদ-দ্দৌলার কাছ থেকে শেখা সেই সোপানে দাঁড়িয়ে আমাদের প্রিয় মাতৃভূমি ও দেশের মানুষকে নিয়ে সুন্দরের স্বপ্ন দেখি এবং সে স্বপ্ন সবাইকে দেখাতে চাই। এই অঙ্গিকারে বাকি জীবনটা অবিচল থাকবো সকলের কাছে সেই প্রত্যাশা ও দোওয়া কামনা করছি ।

LEAVE A REPLY