কেশবপুরে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সার্বক্ষণিক কাজ করে যাচ্ছেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার নুসরাত জাহান ও সহকারী (ভূমি) কমিশনার ইরুফা সুলতানা

0
89

আজিজুর রহমান, কেশবপুর(যশোর)প্রতিনিধি : কেশবপুরে করোনা ভাইরাসের আক্রমন রোধে জনসচেতনতা বৃদ্ধি করতে নিরলস ভাবে যৌথভাবে মিলে উপজেলা প্রশাসনকে সাথে নিয়ে বিভিন্ন ক্ষেত্রে কাজ করে যাচ্ছেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার নুসরাত জাহান ও সহকারী (ভূমি) কমিশনার ইরুফা সুলতানা।
সরকারীভাবে ২৬ শে মার্চ থেকে ৪ই এপ্রিল পর্যন্ত সাধারন ছুটি ঘোষনা থাকার পরও তারা উপজেলার ছোট বড় সকল বাজারেই ছুটে চলেছেন করোনা ভাইরাসে আক্রমন করতে না পারে তার জন্য জনসচেতনতা বৃদ্ধি করতে করোনা ভাইরাস থেকে রক্ষা পাওয়ার কয়েকটি উপায় যেমন কতটুকু দূরত্বে থাকতে হবে ,মাস্ক ব্যাবহার করা সহ কয়েকটি বিষয়ে জনসচেতনতা করা সহ ইজিবাইক ও ভ্যানে লোক বেশি থাকায় চালকদেরকে ডেকে প্রথম বারের মত হুশিয়ারী করা সহ করোনা ভাইরাসের ক্ষতি সমুহ তাদের সমনে উত্থাপন করেন। ইতিপূর্বে নির্বাহী অফিসার নুসরাত জাহান ও সহকারী (ভূমি) কমিশনার ইরুফা সুলতানা যৌথভাবে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে জরিমানা আদায় করেন। ২২ মার্চ রবিবার বিকালে উপজেলা নির্বাহী অফিসার নুসরাত জাহান ও সহকারী কমিশনার(ভূমি) ইরুফা সুলতানা যৌথ অভিযান পরিচালনা করে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রোট এর ক্ষমতা বলে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন ২০০৯ এর ৩৯,৪৩,৪৫ ও ৫৩ ধারা অনুযায়ী মঙ্গলকোট বাজারে দ্রব্যমূল্যরে দাম বেশি রাখায় চাউল ব্যবসায়ী আবু সাঈদকে ৩ হাজার টাকা,শানত পালকে ১হাজার টাকা,আবু বক্কারকে ২ হাজার টাকা, মুদি দোকানদার আশুতোষ হালদারকে ৩ হাজার টাকা,সজ্ঞিৎ কে ২হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।২৪ মার্চ মঙ্গলবার বিকালে উপজেলা নির্বাহী অফিসার নুসরাত জাহান ও সহকারী কমিশনার(ভূমি) ইরুফা সুলতানা যৌথ অভিযান পরিচালনা করে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রোট এর ক্ষমতা বলে ভ্রাম্যমান আদালত দগুবিধি ১৮৬০ সনের ২৬৯ ধারায় কেশবপুর শহরের কপোতাক্ষ সার্জিক্যাল ক্নিনিকের দায়িত্বে থাকা মিজানুর রহমান হোম কোয়ারেন্টাইন না মানায় তাকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।পৃথক অভিযানে দুবাই ফেরত সাগরদাঁড়ি ইউনিয়নের শ্রীপুর গ্রামের নুর ইসলামের স্ত্রী মাসুরা বেগমকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে ২৬ মার্চ বৃহস্পতিবার সকালে জিবানুনাশক স্প্রে কার্যত্রুমের উদ্বোধন করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার নুসরাত জাহান ও সহকারী কমিশনার(ভূমি) ইরুফা সুলতানা। করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে ২৭ মার্চ শুত্রুবার সকালে কেশবপুর হাসাপাতালে কোয়ারেন্টান সেন্টারে পরিদর্শন করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার নুসরাত জাহান, ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) ইরুফা সুলতানা।২৬ মার্চ বৃহস্পতিবার শহরে মাছ বাজারে জিয়েল মাছের দাম বেশি চাওয়ার অভিযোগে উপজেলা নির্বাহী অফিসার নুসরাত জাহান ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে মাছ ব্যবসায়ী শামছুর রহমানকে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইনে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করেন। গত সোমবার দুপুরে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ইরুফা সুলতানা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ক্ষমতা বলে নোংড়া পরিবেশে মিষ্টি বা খাদ্য দ্রব্য পরিবেশন রাখার দায়ে ভালুকঘর বাজারে নুর ইসলাম মিষ্টির দোকানদারকে ৫ শত টাকা ও রবিন মিষ্টির দোকানদারকে ১ হাজার টাকা জরিমানা প্রদান করেন। এদিকে ভ্রাম্যমান আদালত টিমের সদস্যরা বাজারের শাহীন সেন্টার নামে মুদি দোকানে অভিযান চালিয়ে প্রায় ৫ হাজার টাকার বিভিন্ন মালমাল বিনষ্ট করা হয়।ময়োর্ত্তীন মালামাল ও অস্বাস্থ্যকর পরবিশেরে অভযিোগ এনে কশেবপুরে ৩ দনিে ৭ প্রতষ্ঠিানকে র্অতদন্ডাদশে প্রদান করছেে ভ্রাম্যমান আদালত। উপজলো নর্বিাহী অফসিার নুসরাত জাহান ও উপজলো সহকারী কমশিনার(ভুমি) ইরুফা সুলতানার যৌথ আদলত এই র্অথদন্ড প্রদান করনে।র্অথদন্ড ব্যবসায়ীরা হলনে,কশেবপুর শহররে তাপস সনে ১ হাজার,মঠিু দত্ত ১ হাজার,অলোক সনে ৫ হাজার, উপজলো গৌরঘিোনা বাজাররে পঞ্চনন ভদ্র ৫শ ও ভালুকঘর বাজাররে নুর ইসলাম ৫শ ও রবনি দাস ১ হাজার টাকা। উপজলো নর্বিাহী অফসিার ও সহকারী কমশিনার (ভুমি) বলনে, ভোক্তা অধকিার সংরক্ষণ আইন ২০০৯ এর ৫৩ ধারায় ঐ সব দোকানদারকে জরমিানা ও আগাম সর্তক র্বাতা দওেয়া হয়। এ ছাড়া উপজেলা জুড়ে দিন রাত করোনা ভাইরাসের আক্রমন রোধে জনসচেতনতা বৃদ্ধি করতে নিরলস ভাবে যৌথ মিলে কাজ করে যাচ্ছেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার নুসরাত জাহান ও সহকারী (ভূমি) কমিশনার ইরুফা সুলতান।এদিকে তারা যোগদান করার পর থেকে বিভিন্ন বিষয় খোঁজ খবর রাখছেন।তারা যোগদান করার পর থেকেই উপজেলা এখন দূনীতি মুক্ত হয়েছে।উপজেলাকে দূনীতি মুক্ত করার কারণে উপজেলা নির্বাহী অফিসার নুসরাত জাহান ও সহকারী (ভূমি) কমিশনার ইরুফা সুলতানকে সাধুবাদ জানিয়েছে উপজেলার মানুষ।

LEAVE A REPLY