গৃহবধূর শ্লীলতাহানি, আওয়ামী লীগ নেতা গ্রেপ্তার

0
101

বেনাপোল (যশোর) প্রতিনিধি : যশোরের বেনাপোলে মধ্যরাতে মদ্যপবস্থায় এক গৃহবধূকে শ্লীলতাহানি ও মারপিটের অভিযোগে গণপিটুনির শিকার বাবু সরদার (৪০) নামে এক আওয়ামী লীগ নেতাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বুধবার গভীর রাতে বেনাপোল পোর্ট থানার ছোটআঁচড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। গ্রেপ্তারকৃত বাবু সরদার ওই গ্রামের মৃত আকবর আলী ওরফে ক্লে আকবারের ছেলে ও ছোটআঁচড়া ৩ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক। এ ব্যাপারে বেনাপোল পোর্ট থানায় শ্লীলতাহানির অভিযোগ দায়ের করেছে ওই গৃহবধূর স্বামী।

স্থানীয়রা জানান, অভিযুক্তের বিরুদ্ধে গ্রামে নানান অভিযোগ রয়েছে। দলের প্রভাব দেখিয়ে সে নিরীহ মানুষের ওপর অত্যাচার করে। কিন্তু ভয়ে তার বিরুদ্ধে কেউ মুখ খুলতে চায় না। তারা জানায়, প্রকৃতির ডাকে সাড়া দেওয়ায় রাত একটার দিকে ঘরের বাইরে বের হয় ওই গৃহবধূ। ফেরার সময় আগে থেকে ওৎ পেতে থাকা স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতা বাবু সরদার মদ্যপবস্থায় তাকে কাপড় ধরে টানাটানি করে। এসময় ওই গৃহবধূর চিৎকারে স্বামী ঘর থেকে বের হয়ে স্ত্রীকে বাবু সরদারের হাত থেকে রক্ষা করতে গেলে তার স্বামীকে টর্চ লাইট দিয়ে বাবু সরদার আঘাত করে। এ সময় তার স্ত্রী স্বামীকে ঠেকাতে গেলে স্ত্রীর মাথায়ও টর্চ লাইট দিয়ে আঘাত করে আহত করে। পরে স্থানীয় লোকজন ঘটনাস্থলে এসে গনপিটুনি দেয় বাবুকে।

স্থানীয় বেনাপোল পৌর পূজা উদযাপন কমিটির সভাপতি শান্তিপদ গাঙ্গলী বলেন, গভীর রাতে চিৎকারের শব্দে ঘর থেকে বের হয়ে বলি কি হয়েছে। এ সময় বাবু সরদার দৌঁড়ে এসে আমার মাথায় টর্চলাইট দিয়ে আঘাত করে। আমি ঘটনাটি শুনে থানায় ফোন করলে থানা থেকে পুলিশ এসে বাবু সরদারকে গ্রেপ্তার করে নিয়ে যায়।

বেনাপোল পোর্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মামুন খান বলেন, রাতে ঘটনা শুনে পুলিশ পাঠিয়ে বাবু সরদারকে গ্রেপ্তার করে। বুধবার সকাল ১০ টার সময় বেনাপোল পোর্ট থানায় শ্লীলতাহানির শিকার ওই গৃহবধূর স্বামী বাদি হয়ে শ্লীলতাহানির অভিযোগ করেছেন। গ্রেপ্তারকৃত বাবু সরদারকে শ্লীলতাহানি ও মারপিটের ঘটনায় মামলা দিয়ে যশোর আদালতে পাঠানো হয়েছে। এছাড়া ওই পরিবারের নিরাপত্তার বিষয়টিও পুলিশ দেখছে বলে জানান তিনি।

LEAVE A REPLY