যশোরে স্কুল শিক্ষার্থী অপহরণ মামলায় গ্রেফতার-১

84

কল্যাণ রিপোর্ট : যশোরে এক স্কুল পড়ুয়া শিক্ষার্থী অপহরণের অভিযোগে কোতয়ালি মডেল থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে। পুলিশ অপহরণকারী শিক্ষার্থী রুখছানা আক্তার উর্মি (১৪) কে উদ্ধার করে রোববার যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ডাক্তারী পরীক্ষা সম্পন্ন করেছে। মামলায় আসামী করা হয়েছে ৬জনসহ অজ্ঞাতনামা ২/৩জন। এ সময় পুলিশ এজাহার নামীয় আসামী আরজিনা বেগমকে গ্রেফতার করেছে
যশোর শহরের পূর্ব বারান্দীপাড়ার মৃত খালেক সিকাদেরর ছেলে হাফিজুর রহমান কোতয়ালি মডেল থানায় দায়েরকৃত এজাহাওে আসামী করেছেন,সদর উপজেলার সুলতানপুর গ্রামের উসমান গণি খানের ছেলে রিপন হোসেন,রুহুল আমিন খানের ছেলে ওসমান গনি খান,ওসমান গনি খানের স্ত্রী আরজিনা বেগম, ইব্রাহিমের ছেলে রাজু,সিরাজুল ইসলামের ছেলে ওবাইদুল ও সদর উপজেলার দাইতলা গ্রামের আনারুলসহ অজ্ঞাতনামা ২/৩জন।
হাফিজুর রহমান তার দায়েরকৃত এজাহারে বলেন তার মেয়ে রুখছানা আক্তার উর্মি যশোর এমএসটিটি বালিকা বিদ্যালয়ে ৯ম শ্রেনীতে লেখাপড়া করে। রুখসানা আক্তার উর্মি স্কুলে আসা যাওয়া প্রাক্কালে উক্ত রিপন হোসেন তাকে উত্যক্তসহ বিয়ের প্রস্তাব দেয়। পরবর্তীতে ২ ও ৩ আসামী উর্মিকে দেখে পরিবারের কাছে বিয়ের প্রস্তাব দেয়। উর্মি অপ্রাপ্ত বয়স্ক হওয়ায় তাকে বিয়ে দিতে তার পরিবার অস্বীকার করে। উর্মি প্রাইভেট পড়ার উদ্দেশ্যে বাড়ি হতে বের হয় ৩১ মার্চ সকালে। বাড়ির সামনে পৌছালে ৪ মোটর সাইকেল যোগে রিপন হোসেনসহ তার সহযোগী আসামীরা উর্মিকে ফুসলিয়ে মোটর সাইকেল যোগে তুলে নিয়ে বারান্দীপাড়া লিচুতলার দিকে চলে যায়। উর্মির ফুফু চায়না বেগম দেখে উর্মিকে অপহরণকারীদের হাত থেকে রক্ষার চেষ্টা চালিয়ে ব্যর্থ হয়। পুলিশ এটনায় এজাহার নামীয় ৩ নম্বর আসামী আরজিনা বেগমকে গ্রেফতার করে আদালতে সোপর্দ করেছে।

LEAVE A REPLY