করোনা পরিস্থিতি ভয়াবহ হচ্ছে ভারতে

0
83

কল্যাণ ডেস্ক : ভারতে করোনা পরিস্থিতি দিন-দিন আরও খারাপ হচ্ছে। তবে যে কোনও পরিস্থিতির জন্য প্রস্তুত ভারত। এমনটাই জানালেন ভারতের কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষ বর্ধন।

হর্ষ বর্ধন বলেন, উন্নত দেশের তুলনায় ভারতের পরিস্থিতি অনেক ভালো। আমরা সব থেকে খারাপ পরিস্থিতির সঙ্গে মোকাবিলা করতে প্রস্তুত আছি। ভারতে করোনায় মৃত্যুর হার ৩.৩ শতাংশের আশপাশে। সুস্থ হয়ে ওঠাৎ হার বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৯.৯ শতাংশ। ভারতে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা এখন ১১ দিনে দ্বিগুণ হচ্ছে। আমরা সব থেকে খারাপ সময়ের জন্যও প্রস্তুত।

ভারতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ৬০ হাজার।

আজ সকালে করোনা সংক্রান্ত দৈনিক বুলেটিনে জানানো হয় যে, গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ৩,৩২০ জনের শরীরে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ পাওয়া গিয়েছে। এর জেরে ভারতে সম্মিলিত করোনা কেসের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ৫৯,৬৬২-তে। করোনায় মৃতের সংখ্যা প্রায় ২ হাজার।

এর আগে, কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রণালয় দাবি করেছিল যে, আক্রান্তের সংখ্যার বৃদ্ধির হার ১ মে-র পর থেকে কমের দিকে যাচ্ছে। তবে সেই দাবিকে হার মানাচ্ছে কেন্দ্রেরই প্রকাশিত তথ্য।

এদিকে, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গিয়েছেন আরও ৯৫ জন। এর জেরে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ১৯৮৬-তে। সুস্থতার হার বাড়ছে। এর মধ্যেও গত ২৪ ঘণ্টায় রেকর্ড সংখ্যক মানুষ সুস্থ হয়ে উঠেছেন বলে দাবি করা হয় কেন্দ্রের তরফে।

জানা গেছে, গত ২৪ ঘণ্টায় মোট ২৩৬০ জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। এখনও পর্যন্ত ১৭ হাজার ৯০০ জন করোনা মুক্ত হয়েছেন বলে জানানো হয়েছে।

করোনায় জর্জরিত মহারাষ্ট্র

মহারাষ্ট্রে করোনা সংক্রমণ সর্বাধিক। গুজরাতেও বাড়ছে সংক্রমণ। মহারাষ্ট্রে মোট করোনা কেস দাঁড়িয়েছে ১৯ হাজার ৬৩-এ। সে রাজ্যে এখনও পর্যন্ত মারা গিয়েছেন ৭৩১ জন। মুম্বাইতেই ১২ হাজারের বেশি করোনা আক্রান্ত রয়েছেন। বাণিজ্যনগরীতে এখনও পর্যন্ত ৪৬২ জন মারা গিয়েছেন।

গুজরাতে মৃত্যু মিছিল

গুজরাতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ৭ হাজার হয়েছে। দিল্লিতেও আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ৬ হাজার। তবে একদিকে গুজরাতে যেখানে ৪৪৯ জন প্রাণ হারিয়েছেন সেখানে দিল্লিতে করোনার বলি মাত্র ৬৮। মৃতের হারে গুজরাত বাকি সব রাজ্যকে ছাপিয়ে গিয়েছে।

LEAVE A REPLY