মুশফিকের ব্যাটের নিলামে অংশ নিলেন ‘সানি লিওন’!

0
113

ক্রীড়া ডেস্ক : বাংলাদেশের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিম যে ব্যাট দিয়ে বাংলাদেশের ক্রিকেট ইতিহাসের প্রথম ডাবল সেঞ্চুরি করেছিলেন শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে, সেই ব্যাটই নিলামে তুলেছেন। আর তার এই ঐতিহাসিক ব্যাটটির নিলাম নিয়ে তুঘলকি কাণ্ড শুরু হয়েছে। নিলাম স্থগিত হয়েছে কিছু ভুয়া বিডের কারণে।

জানা যায, এই নিলামের উদ্দেশ্য কভিড-১৯-এর কারণে ক্ষতিগ্রস্ত ও অর্থনৈতিকভাবে পিছিয়ে পড়াদের সাহায্য করা। কিন্তু গতকাল যখন নিলাম চলছিল এর মধ্যে হঠাৎ তা বন্ধ করে দেওয়ার ঘোষণা করে কর্তৃপক্ষ। নিলামে ব্যাটের দর ৪০ লাখ টাকা ছাড়িয়ে যাওয়ায় নিলাম স্থগিত করা হয়েছে।

মুশফিকুর রহিমের ম্যানেজার বর্ষণ কবির বলেন, বিডিংটা যাতে ঠিক মতো না হয় এই জন্যে অনেকেই চেষ্টা করছে। মুশফিকুর রহিমের এই ব্যাট নিলামে কিনতে মোট ৫৩টি বিড জমা পড়েছে এবং সর্বোচ্চ যে বিড হয় সেটা ৪১ লাখ টাকা। মুশফিকুর রহিমের এই ব্যাটের ভিত্তি মূল্য ধরা হয় ৬ লাখ টাকা।

বাংলাদেশে এই প্রথম অনলাইন মাধ্যমে একটা নিলাম করা হয়েছে বলে জানান বর্ষণ কবির। এই নিলামের সাথে বাংলাদেশের একটি অনলাইন মঞ্চ পিকাবু থেকে এই বিডিং পরিচালনা করা হয়েছে। ৪০ মিনিটের মধ্যে যখন ২২ লাখ টাকা উঠে গেল, ঠিক তখন আমাদের টনক নড়ে যায়। এরপর আমরা বলে দেই যাতে কেউ ১০ হাজার টাকার ওপরে বিড না করে, বলছিলেন কবির।

তখন তারা দেখতে পান এখানে দুজন বিড করছে যার মধ্যে একজনের নাম ভারতের অভিনেত্রী সানি লিওনের নামে। তাকে বিড করতে দেখা গেছে তখন। মুশফিকুর রহিমের ম্যানেজার বর্ষণ কবির বলেন, এই ঘটনার পর মুশফিকের মন অনেকটা খারাপ হয়ে গেছে।

১০ তারিখ থেকে শুরু হয়েছে মুশফিকের ব্যাটের বিডিং। বাংলাদেশ ক্রিকেট ইতিহাসের প্রথম ডাবল সেঞ্চুরির ব্যাটের ঐতিহাসিক দাম এবং সব কিছু মিলিয়ে এই নিলামের আয়োজকরা এই নিলামকে খোলা রাখার সিদ্ধান্ত নেন যাতে যে কেউ বিড করতে পারে।

কবির বলেন, অনেকে আগে থেকে ক্রেতা ঠিক করে রাখে। আমরা সেই পথে আগাইনি। তবে এখনও আশাহত হইনি। আমরা উপমহাদেশের অনেক ক্রিকেট সংগ্রাহকের সাথে কথা বলেছি তারা আশ্বস্ত করেছেন যে বিড করবেন নতুন করে। মুশফিকের ম্যানেজার বলছেন, খুব দ্রুত এসব সমস্যা কাটিয়ে আবারো নিলাম শুরু হবে।

LEAVE A REPLY