যশোরে করোনা রোগী ২০০ ছাড়ালো

145

কল্যাণ রিপোর্ট : যশোরে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত ব্যক্তির সংখ্যা এখন ২০০। শনিবার যবিপ্রবি জেনোম সেন্টার থেকে পাঠানো রিপোর্টে এই জেলার ১৭টি এবং গত শুক্রবার খুলনা মেডিকেল কলেজ থেকে পাঠানো রিপোর্টে যশোরের তিনটি নমুনা পজেটিভ ছিল। এই নমুনাগুলোর সবই নতুন।
যশোরে আরো ১৭ জনের শরীরে করোনাভাইরাসের অস্তিত্ব মিলেছে। শনিবার যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে দেওয়া ফলাফলে এই তথ্য জানানো হয়। এটি একদিনে যশোরে সংক্রমণ শনাক্তের রেকর্ড। যশোরের সিভিল সার্জন এই দুইদিনে যেসব নমুনার রিপোর্ট পজেটিভ এসেছে, তার সবগুলোই নতুন।
এর আগে শুক্রবার রাতে খুলনা মেডিকেল কলেজ থেকে ওই দিনের পরীক্ষার যে ফলাফল দেওয়া হয়, তার মধ্যে পজেটিভ আসা যশোরের চারটি নমুনা ছিল। যদিও যশোরের সিভিল সার্জনের দপ্তর থেকে জেলার তিনটি নমুনা পজেটিভ বলে জানানো হয়। এই তিনটিসহ যশোর জেলায় করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা দুইশ’-তে দাঁড়ালো।
শনিবার নড়াইলের পাঁচটি, মাগুরা ও সাতক্ষীরার দুটি, বাগেরহাটের সাতটি নমুনা পজেটিভ ফল দিয়েছে বলে জানায় যবিপ্রবি। সব মিলিয়ে শুক্রবার যবিপ্রবি জেনোম সেন্টারে পরীক্ষিত নমুনাগুলোর মধ্যে ৩৩টির পজেটিভ রেজাল্ট পাওয়া যায়। যবিপ্রবি জেনোম সেন্টারে একদিনে এতো সংখ্যক নমুনা পজেটিভ এর আগে আর হয়নি।
যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (যবিপ্রবি) এনএফটি বিভাগের চেয়ারম্যান এবং চলমান পরীক্ষণ দলের সদস্য ড. শিরিন নিগার জানান, শুক্রবার তাদের জেনোম সেন্টারে যশোরসহ দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের পাঁচ জেলার মোট ২২১টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এর মধ্যে পজেটিভ ফল দিয়েছে ৩৩টি।
তিনি জানান, যশোরের ১০২টি নমুনা পরীক্ষা করে ১৭টি পজেটিভ পাওয়া যায়। এছাড়া নড়াইলের ১৪টির মধ্যে পাঁচটি, মাগুরার ৩৬টির মধ্যে দুটি, সাতক্ষীরার ২৪টির মধ্যে দুটি এবং বাগেরহাটের ৪৫টির মধ্যে সাতটি নমুনা পজেটিভ আসে।
ফলাফল সংশ্লিষ্ট সিভিল সার্জনদের কাছে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে বলে জানান ড. শিরিন।
দুপুরে যশোরের সিভিল সার্জন ডা. শেখ আবু শাহীন সংবাদকর্মীদের জানান, যবিপ্রবি থেকে আজ আসা ১৭টি এবং গতকাল শুক্রবার খুমেক থেকে আসা তিনটি পজেটিভ ফলই নতুন নমুনার। অর্থাৎ এই জেলায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ২০০ ছুঁয়েছে।
সিভিল সার্জন অফিস সূত্র জানায়, নতুন করে শনাক্ত হওয়া ব্যক্তিদের নাম-ঠিকানা বের করার কাজ চলছে। এরপর শনাক্ত ব্যক্তিদের বাড়ি লকডাউন করা হবে।
সিভিল সার্জনের অফিস সূত্রে জানা গেছে, গতকাল যবিপ্রবি থেকে পজেটিভ রিপোর্ট আসা যশোর জেলার রোগীদের মধ্যে সদর উপজেলার চারজন রয়েছেন। এরা সবাই পুরুষ। এদের মধ্যে জেনারেল হাসপাতালের এমএলএসএস রয়েছেন দুইজন।
এছাড়া শনাক্ত হওয়াদের মধ্যে কেশবপুরের এক নারী ও এক পুরুষ, ঝিকরগাছার এক পুরুষ, বাঘারপাড়ার এক নারী, চৌগাছার এক পুরুষ, শার্শার দুই পুরুষ এবং অভয়নগরের ছয় পুরুষ রয়েছেন।

Previous articleঝড়ো হাওয়ার আভাস, সমুদ্রবন্দরে ৩ নম্বর সতর্কতা
Next articleকঠিন সময়ের বাজেট : অর্থনীতিতে গতিসঞ্চারই বড় চ্যালেঞ্জ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here