নাসিমকে নিয়ে আপত্তিকর পোস্ট, আ.লীগ নেতার বিরুদ্ধে মামলা

126
মন্ময় মনির

সাতক্ষীরা জেলা প্রতিনিধি : আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য, সাবেক মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিমের মৃত্যুর পর ফেসবুকে আপত্তিকর পোস্ট দেওয়ায় সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক প্রচার সম্পাদক মন্ময় মনিরের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। মামলাটি দায়ের করেছেন উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি সাগর হোসেন।
রোববার (১৩ জুন) রাতে কলারোয়া থানায় মামলাটি দায়ের করা হয়। মামলা নং-১১।
কলারোয়া উপজেলার ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি সাগর হোসেন জানান, মন্ময় মনির তার ফেসবুকে একটি আপত্তিকর পোস্ট দিয়েছেন। সেই স্ট্যাটাস নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে রীতিমত প্রতিবাদের ঝড় ওঠে। তিনি যে উক্তি ব্যবহার করেছেন, তা মানহানিকর। তিনি জেনে শুনে দলের ও নেতাদের সুনাম নষ্ট করেছেন। তাই এ ঘটনায় বাধ্য হয়ে তিনি মন্ময় মনিরের বিরুদ্ধে কলারোয়া থানায় একটি এজাহার জমা দিয়েছেন।
কলারোয়া থানার উপ পরিদর্শক (এসআই) রাজ কিশোর পাল বলেন, ফেসবুকে একটি বিতর্কিত পোস্ট দেওয়ায় উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি সাগর হোসেন থানায় একটি অভিযোগপত্র জমা দিয়েছেন। অভিযোগপত্রটি মামলা হিসেবে রেকর্ড করা হয়েছে। মন্ময় মনিরকে গ্রেফতার করতে পুলিশী তৎপরতা শুরু হয়েছে।
এদিকে ওই স্ট্যাটাস দেওয়ার ১৯ ঘণ্টা পরে সোমবার (১৫ জুন) সকাল সাড়ে ৭টার দিকে মন্ময় মনির তার ফেসবুক আইডির টাইমলাইনে আরেকটি স্ট্যাটাস দিয়ে আগের স্ট্যাটাসের জন্য ক্ষমা প্রার্থনা করেছেন।
তিনি লেখেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর কাছে ক্ষমা প্রার্থনা। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমার ভক্তিপূর্ণ সালাম নিবেন৷ সম্প্রতি ফেসবুকে আমার দেয়া একটি পোস্ট নিয়ে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, কলারোয়া, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের কিছু নেতাকর্মীদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। আমি আমার পোস্টটি আওয়ামী লীগের কোনো প্রয়াত নেতার নাম উল্লেখ করিনি। তারপরও মনে করি বর্তমান সময়ে পোস্টটা দেওয়া আমার ভুল হয়েছে। এজন্যে আমি পোস্টটা ডিলিট করেছি ও প্রত্যাহার করেছি। কলারোয়া থানায় আমার নামে একটি মামলাও হয়েছে। যা অত্যন্ত দুঃখজনক।
আমি বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও আপনার আদর্শের একজন সৈনিক ও নিবেদিতপ্রাণ কর্মী৷ আমি এতিম, একজন সাহিত্য সংস্কৃতি কর্মী ও শিক্ষক। আমি প্রয়াত রাজনীতিবিদ মোহাম্মদ নাসিম এবং শেখ মোহাম্মদ আব্দুল্লাহর মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করছি।
একই পোস্টে তিনি আরও বলেন, অনেক সময় আমার আইডি হ্যাক করে অনেকে অশালীন মন্তব্য করে। আমি আপনার কাছে ও রাষ্ট্রের কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করছি। আমি ক্ষমা পেলে আমার পরিবারটি সুরক্ষা হবে। আপনার সফল রাষ্ট্র পরিচালনা দেশকে আরো এগিয়ে নিয়ে যাবে এই প্রত্যাশা করি। আপনার বিশ্বস্ত মো. মনিরুজ্জামান (মন্ময় মনির), আওয়ামী লীগ কর্মী। ১৫.৬.২০২০।

Previous articleকরোনার উপসর্গ নিয়ে সাতক্ষীরায় দুইজনের মৃত্যু
Next articleযশোরে র‌্যাব পরিচয়ে ছাত্রদল নেতাকে তুলে নেয়ার অভিযোগ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here