জিজ্ঞাসাবাদে ‘কিছুই মনে পড়ছে না’ রিয়ার

0
16

বিনোদন ডেস্ক : সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর তদন্ত যত এগোচ্ছে, তত নতুন নতুন ঘটনা মোড় নিচ্ছে। গত শুক্রবার ইডি সুশান্তের প্রেমিকা রিয়া চক্রবর্তীকে প্রায় নয় ঘণ্টা জেরা করেছে। এই জিজ্ঞাসাবাদের সময় রিয়া নিজের আর একটি ফোন নম্বর বেমালুম লুকিয়ে গেছেন। এ জন্য রিয়াকে সোমবার আবার জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডেকে পাঠিয়েছে ভারতের অর্থনৈতিক আইনকানুন প্রয়োগ ও আর্থিক অপরাধ দমনসংক্রান্ত সংস্থা এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি)। রিয়ার ভাই শৌভিক চক্রবর্তীরও ম্যারাথন জেরা চলছে। জানা গেছে, ১৮ ঘণ্টা ধরে তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। রোববার সকাল ৬টা ৩০ নাগাদ ইডির দপ্তর থেকে শৌভিককে বের হতে দেখা যায়। রিয়ার বাবা ইন্দ্রজিৎ চক্রবর্তীকেও ইডি সমন পাঠিয়েছিল। সোমবার সকালে রিয়া তাঁর ভাই শৌভিক ও বাবা ইন্দ্রজিৎ চক্রবর্তীকে সঙ্গে নিয়ে ইডির দপ্তরে পৌঁছে গেছেন বলে জানা গেছে।
এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেটের বা ইডিকে তদন্তে রিয়া কোনো রকম সহযোগিতা করছে না বলে অভিযোগ উঠেছে। ইডির একাধিক প্রশ্নের উত্তর তিনি ‘ভুলে গেছেন’ বলে এড়িয়ে গেছেন। বলেছেন, তাঁর নাকি এসব বিষয়ে কিছুই মনে পড়ছে না। রিয়াকে ইডির পক্ষ থেকে বলা হয়েছিল তাঁর ব্যবহৃত সব বৈদ্যুতিক সামগ্রী জমা করতে। কিন্তু রিয়া নিজের এক ফোন নম্বর ইডির কাছে গোপন রাখেন। এদিকে রিয়া এই ফোন নম্বরটি রীতিমতো ব্যবহার করছেন। ইডি রিয়াকে তাঁর আর এই ফোন নম্বরের রেকর্ড দেখালে তখন তিনি তা স্বীকার করেন। রিয়া মেনে নেন যে এই নম্বরটি তিনি ব্যবহার করছেন। ইডি এখন রিয়ার গোপন ফোন নম্বরের বিস্তারিত তথ্য ডাউনলোডের কাজে ব্যস্ত। এই ফোনের প্রাপ্ত তথ্য থেকে সুশান্তের মৃত্যুর রহস্য নতুন মোড় নিতে পারে। সোমবার রিয়াকে এসব বিষয়েই জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়।

সুশান্তের অ্যাকাউন্টের লেনদেনের বিষয়ে তদন্ত করতে ইডি রিয়া ও ভাই শৌভিককে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে। রিয়ার থেকে আরও তথ্য পেতে ইডি তাঁকে আবার ডেকে পাঠিয়েছে। সুশান্তের বন্ধু সিদ্ধার্থ পিটানীকেও ডেকে পাঠিয়েছে ইডি।

সুশান্ত মামলায় সিবিআই গত বৃহস্পতিবার রিয়া চক্রবর্তী, শৌভিক চক্রবর্তী, ইন্দ্রজিৎ চক্রবর্তী, সন্ধ্যা চক্রবর্তী, স্যামুয়েল মিরান্ডা, শ্রুতি মোদকের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করেছিল।

LEAVE A REPLY