কঠিন বোলারদের খেলতেই ভালো লাগে হৃদয়ের

0
12

ক্রীড়া ডেস্ক : যুব ক্রিকেটে বিশ্বজয়ের সাফল্য এখন অতীত। শুরু হয়ে গেছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের জন্য নিজেকে গড়ে তোলার লড়াই। তৌহিদ হৃদয় জানেন, প্রশিক্ষণ কঠিন হলেই পরের কাজটা হয় সহজ। তাই কঠিন পথ মাড়িয়েই লক্ষ্যের দিকে ছুটে যেতে চান তরুণ এই ব্যাটসম্যান।
চলতি প্রেসিডেন্ট’স কাপের প্রথম ম্যাচে অনেক তারকার ভিড়ে উজ্জ্বলতম ছিলেন হৃদয়। মাহমুদউল্লাহ একাদশের বিপক্ষে শান্ত একাদশের জয়ে তিনি ছিলেন ম্যাচ সেরা। বিপর্যয়ের মধ্যে নেমে দারুণ পরিণত ব্যাটিংয়ে ফিফটি উপহার দিয়েছিলেন ১৯ বছর বয়সী এই ব্যাটসম্যান।
গত অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে শিরোপা জয়ী বাংলাদেশ দলের ব্যাটিংয়ের অন্যতম স্তম্ভ ছিলেন হৃদয়। বিশ্বকাপের অবশ্য তারা সেরাটা পায়নি দল। তবে বিশ্বকাপের আগে নানা সময়েই জানান দিয়েছেন নিজের প্রতিভা ও সামর্থ্য। যুব ওয়ানডে পর্যায়ে টানা তিন সেঞ্চুরি করা একমাত্র ব্যাটসম্যান তিনি। তার ব্যাট থেকে এসেছে যুব ওয়ানডে ইতিহাসের তৃতীয় সর্বোচ্চ রান।
ঘরোয়া ক্রিকেটেও তার শুরুটা হয়েছে বেশ ভালো। লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেটে ২৩ ম্যাচ খেলে ব্যাটিং গড় ৪৫.৫৫। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে ৪ ম্যাচ খেলে গড় ৫৩.৫০।
তার এগিয়ে চলার আরেকটি প্রমাণ প্রেসিডেন্ট’স কাপের প্রথম ম্যাচের পারফরম্যান্স। রুবেল হোসেন, ইবাদত হোসেন, আবু হায়দার, মাহমুদউল্লাহর মতো জাতীয় ক্রিকেটারদের সামলেছেন তিনি অনায়াসেই।
টুর্নামেন্টে দলের দ্বিতীয় ম্যাচের আগে হৃদয় বললেন, প্রতিপক্ষের বোলিং আক্রমণ কঠিন হলেই তিনি বেশি উপভোগ করেন। সামনেও ধরে রাখতে চান এই ধারা।
“আসলে আমি যেখানেই খেলি না কেন, নিজে থেকে চাই কঠিন বোলারদের মুখোমুখি হতে। সবসময় ভালো মানের বোলারকে মোকাবেলা করতে চাই, কারণ তাদের বিপক্ষে রান করলে অনেক আত্ববিশ্বাস পাওয়া যায়।”
“যেহেতু এটা ভালো একটা প্রতিযোগিতা, ভালো একটা লিগ চলছে, সবসময় ফোকাস করব কীভাবে নিজেকে হাইলাইট করা যায়, কীভাবে আরও ভালো কিছু করা যায়।”
প্রেসিডেন্ট’স কাপের প্রথম ম্যাচে হৃদয়রা জিতেছেন ৪ উইকেটে। বুধবার তাদের প্রতিপক্ষ তামিম ইকবালের দল।
হৃদয় জানালেন, প্রথম ম্যাচের ভুলগুলি এই ম্যাচে শোধরাতে চান তারা।
“এখানে প্রত্যেকটা ম্যাচ অনেক চ্যালেঞ্জিং হবে। তামিম ভাইদের সঙ্গে আমাদের খেলা বৃহস্পতিবার। তারা অনেক কঠিন দল , মুস্তাফিজ ভাই আছেন, অনেক ভালো ভালো বোলার আছেন ওখানে।”
“তবে আমরা নিজের দিকেই মনোযোগ রাখছি। আশা করি, নিজেরা মাঠে গিয়ে প্রয়োগ করতে পারব। গত ম্যাচে যে ভুলগুলো হয়েছে টপ অর্ডারে, ছোট ছোট ভুলগুলো পরের ম্যাচে কাটিয়ে ওঠার চেষ্টা করব।”

LEAVE A REPLY