‘বুড়ো’ ইব্রার কাছে পাত্তাই পাচ্ছে না রোনালদো-লুকাকুরা!

8

ক্রীড়া ডেস্ক : মেসি-রোনালদোদের মতো সেরা খেলোয়াড়ের সারিতে সেভাবে বিবেচনা করা হয় না জ্লাতান ইব্রাহিমোভিচের নাম। তবে তিনি যে সবার চেয়ে আলাদা, সেটার প্রমাণ প্রায়ই দিয়ে যাচ্ছেন সুইডিশ এই স্ট্রাইকার। বয়সটাকে স্রেফ একটা সংখ্যা বানিয়ে ইতালির শীর্ষ লিগে ধারাবাহিকভাবে পারফর্ম করে চলেছেন তিনি। শুধু খেলে যাচ্ছেনই না, লিগের শীর্ষ গোলদাতাও এখন তিনি!
ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো, রোমেলো লুককু, চিরো ইম্মোবিলে, লাওতারো মার্টিনেজদের মতো বিশ্বমানের স্ট্রাইকারদের টপকে বুড়ো ইব্রাহিমোভিচ এখন ইতালিয়ান সিরি’আ-এর সর্বোচ্চ গোলদাতা।
গত রাতেই এই ‘বুড়ো’ ঘোড়ার পিঠে চড়েই নাপোলি-বাধা পার হয়েছে এসি মিলান। নাপোলির মতো লিগ- শিরোপা প্রত্যাশীদের ইব্রাহিমোভিচ চুপ করিয়ে দিয়েছেন জোড়া গোল করে। এই নিয়ে লিগে ১০টা গোল করা হয়ে গেল সুইডিশ স্ট্রাইকারের, তাও আবার মাত্র ছয়টা ম্যাচ খেলে।
তা আবার যেমন-তেমন কোনো গোল নয়। প্রথম গোলটাই দেখুন। বর্তমান সময়ের অন্যতম সেরা সেন্টারব্যাক মানা হয় নাপোলির সেনেগালিজ তারকা কালিদু কুলিবালিকে। সেই শক্তিশালী ডিফেন্ডারকে বোকা বানিয়ে হেড করে নিখাদ স্ট্রাইকারের মতো গোল করেছেন এই কিংবদন্তি।মিলানের হয়ে তৃতীয় গোলটা করেছেন নরওয়ের তরুণ উইঙ্গার ইয়েন্স পিটার হাউগে। মজার ব্যাপার হলো, তরুণ এই তারকার জন্ম যে সালে, সে ১৯৯৯ সালেই সুইডিশ ক্লাব মালমোর হয়ে ক্যারিয়ার শুরু করেছিলেন ইব্রাহিমোভিচ। এখন দুজনই খেলছেন সতীর্থ হিসেবে, কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে ভগ্নপ্রায় মিলানকে টেনে তুলছেন ওপরের দিকে। শুধু হাউগেই নন, একই কথা প্রযোজ্য মিলানের বর্তমান খেলোয়াড় জিয়ানলুইজি দোন্নারুমা, দিওগো দালোত, সান্দ্রো তোনালি, রাফায়েল লিয়াও, পিয়েরে কালুলু, ব্রাহিম দিয়াজ, আলেক্সিস সালেমেকার্স, লরেঞ্জো কলোম্বোর ক্ষেত্রেও। প্রত্যেকের জন্মের সময় বা আগে থেকেই পেশাদার ক্যারিয়ার শুরু করেছিলেন ইব্রাহিমোভিচ। ড্যানিয়েল মালদিনির কথাই ধরুন, এককালে তাঁর বাবা পাওলোর সঙ্গে মাঠের লড়াইয়ে কতবার যে মুখোমুখি হয়েছেন ইব্রা, হিসাব নেই। এখন পাওলোর ছেলেই ইব্রার সতীর্থ!

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here