মুফতি আনাসের সঙ্গে যেভাবে পরিচয় ও ধর্মের পথে সানা

51

বিনোদন ডেস্ক : বলিউডের রঙ্গিন দুনিয়া ছেড়ে ইসলামের বিধি-বিধান অনুযায়ী জীবনযাপন শুরু করেছেন বলিউড অভিনেত্রী ও বিগবস তারকা সানা খান। সম্প্রতি ভারতের গুজরাটের মাওলানা মুফতি আনাসকে বিয়ে করেন তিনি।
বিয়ের পর সানা খান জানিয়েছেন, আল্লাহর সন্তুষ্টির জনই মাওলানা মুফতি আনাসকে বিয়ে করেছেন তিনি। সম্প্রতি স্বামীর সঙ্গে বিয়ের ছবি ইনস্টাগ্রামে পোস্টও করছেন। সানা খান হুট করে কেনো ইসলামের বিধি-বিধান অনুযায়ী জীবনযাপন শুরু করলেন কেনোই ঝলমলে দুনিয়া ছেড়ে এক মাওলানাকে বিয়ে করলেন এমন প্রশ্ন এখন অনেকের কাছেই।
যাদের ভেতর এমন প্রশ্ন উকি দিচ্ছে তাদের সানা খান জানিয়েছেন, দুনিয়ায় যে ঝলমলে জীবনযাপন এতোদিন করে এসেছেন তিনি তার কোনো মূল্য নেই। তাইতো নিজেকে সেভাবেই গুছিয়ে নিয়েছেন সানা খান। ইসলামী জীবন যাপনের জন্যেই জীবনসঙ্গী হিসেবে মাওলানা মুফতিকে বেছে নিয়েছেন।
বরকে নিয়ে সানা খান ইনস্টাগ্রামে যে পোস্ট করেছেন সেখান থেকেই জানা সানার স্বামীর নাম আনাস সাঈদ। আনাস সাঈদ একজন ইসলামী চিন্তাবিদ। এ ছাড়া তিনি এখন গুজরাটের ব্যবসায়ী।
মুফতি আনাসের সঙ্গে সানা খানের পরিচয়টা বেশ সহজেই হয়েছে বলে জানা গেছে। সানা খান ‘বিগবস সিজন-৬’-এর তারকা। সানার সঙ্গে বিগবসের পরের সিজনের একজনের সঙ্গে পরিচয় ঘটে। সিজন-৭-এর প্রতিযোগী এজাজ খান হলেন সেই প্রতিযোগী, যিনি বলিউডের ‘রক্ত চরিত্রা-২’ ও ‘আল্লাহকে বান্দে’ নামের দুটি সিনেমায় অভিনয় করেছেন। এজাজ খান ওই সিজনে আজব আজব সব কর্মকাণ্ড করে সালমান খানের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। যা-ই হোক, ওই প্রতিযোগীদের সম্মিলনেই পরিচয় ঘটে সানা ও এজাজের। এজাজ খানের পরিচিত ছিলেন মুফতি আনাস। এজাজ ও আনাস দুজনই ভারতের গুজরাটের হওয়ায় তাদের মধ্যে সম্পর্ক ছিল আগে থেকেই।
অভিনেতা এজাজই মুফতি আনাসের সঙ্গে সানা খানের পরিচয় করিয়ে দেন। এরপর আনাসের সঙ্গে সানার পৃথকভাবে কথা হতে থাকে। সানা খান বলছেন, তিনি আল্লাহর সন্তুষ্টির জন্যই ভালোবেসে বিয়ে করেছেন। সে অনুযায়ী তাদের মধ্যে প্রণয় থেকে পরিণয়ের বিষয়টি ঘটে। তবে অনেকেই ধারণা করছেন সাবেক প্রেমিক লুইসের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্নের পরের এক বছরের মধ্যেই জীবনের এমন মোড় ঘুরিয়ে নেন সানা খান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here