‘সাংবাদিক কিরণ সাহা আমৃত সত্যের পথে অবিচল ছিলেন’

0
13

কল্যাণ রিপোর্ট : সাংবাদিক কিরণ সাহা বস্তুনিষ্ঠ, সাহসী সাংবাদিকতার পাশাপাশি দক্ষ সংগঠক হিসেবে সমাদৃত ছিলেন। আমৃত্যু সত্যের পথে অবিচল ছিলেন। তার অকাল প্রয়াণে যশোরে বস্তুনিষ্ঠ সাংবাদিকতা ও দক্ষ সংগঠক হিসেবে অপূরণীয় ক্ষতি হয়েছে। তার সেই শূণ্যতা আজও পূরণ হয়নি। তার নীতি ও আদর্শ নতুন প্রজন্মের জন্য অনুকরণীয় হয়ে আছে। কর্মের মধ্যেই তিনি আজীবন বেঁচে থাকবেন। সোমবার দৈনিক যুগান্তর যশোর ব্যুরোর সাবেক প্রধান প্রথিতযশা সাংবাদিক কিরণ সাহা কচি’র সপ্তম মৃত্যুবার্ষিকীর স্মরণসভায় বক্তারা এসব কথা বলেন।
বিকেলে দৈনিক যুগান্তর যশোর ব্যুরো অফিসে স্মরণসভায় সভাপতিত্ব করেন স্বজন সমাবেশ যশোর শাখার সভাপতি জিএম জুলফিকার আব্দুল্লাহ। স্বজন সমাবেশ যশোর জেলা শাখার উদ্যোগে আয়োজিত স্মরণসভায় বক্তব্য রাখেন যশোর সাংবাদিক ইউনিয়ন (জেইউজে) সভাপতি ফারাজী আহমেদ সাঈদ বুলবুল, সাধারণ সম্পাদক এইচআর তুহিন, সাবেক সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমান মিলন, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জাসদ) জেলা শাখার সহ-সভাপতি আহসান উল্লাহ ময়না, জেইউজে যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক তবিবর রহমান, প্রয়াত কিরণ সাহার জামাই (মেয়ের স্বামী) শুভংকর বিশ^াস, স্বজন সমাবেশ জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক কামরুল হাসান রিপন, যুগান্তর যশোর ব্যুরো ফটোসাংবাদিক হাসফিকুর রহমান পরাগ, অনলাইন নিউজপোর্টাল ঢাকা পোস্ট ডটকমের যশোর প্রতিনিধি জাহিদ হাসান। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন যুগান্তর যশোর ব্যুরো প্রধান ইন্দ্রজিৎ রায়। অনুষ্ঠানের শুরুতে বিদেহী আত্মর শান্তি কামনায় এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়। স্মৃতিচারণ শেষে কিরণ সাহার প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করা হয়। অপরদিকে, শহরের পুরাতন কসবা আজিজ সিটির নিজ বাসভবনে তার আত্মার শান্তি কামনায় পরিবারের পক্ষ থেকে ধর্মীয় অনুষ্ঠান হয়েছে।
প্রসঙ্গত, ২০১৪ সালের ২৫ জানুয়ারি দৈনিক যুগান্তরের যশোর ব্যুরো অফিসে কর্মরত অবস্থায় হৃদরোগে আক্রান্ত হন। ওইদিন রাতে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। কিরণ সাহা যশোর সাংবাদিক ইউনিয়নের একজন প্রতিষ্ঠাতা সদস্য ও অবিভক্ত সাংবাদিক ইউনিয়নের নির্বাচিত সভাপতি, যশোর প্রেসক্লাবের কয়েকবার সহসভাপতি ও কোষাধ্যক্ষ, যশোর সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক এবং অবিভক্ত বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (বিএফইউজে) সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। এছাড়া সাংস্কৃতিক সংগঠন উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী, জাতীয় রবীন্দ্র সংগীত সম্মিলন পরিষদ, চাঁদেরহাট, পুনশ্চ যশোরসহ আরো কয়েকটি সংগঠনের সঙ্গে সম্পৃক্ত ছিলেন।

LEAVE A REPLY