যশোর কেন্দ্রীয় কারাগারের ব্যারাকে আগুন নিয়ন্ত্রণে

19

কল্যাণ রিপোর্ট : অগ্নিকান্ডে যশোর কেন্দ্রীয় কারাগারের ভিতরে কারারক্ষীদের একটি কোয়ার্টারের ৬টি ঘর পুড়ে ভস্মিভূত হয়ে গেছে। অগ্নিকান্ডে কেউ হতাহত না হলেও ঘর থেকে কোন মালামাল বের করা সম্ভব হয়নি। তবে কী পরিমান ক্ষতি হয়েছে তা এখনও নির্ধারণ করা সম্ভব হয়নি। তবে জেলর বলছেন, ক্ষতি নির্ধারণ ও আগ্নিকান্ডের সূত্রপাত নিশ্চিত হতে একটি কমিটি গঠন করা হবে।
বৃহস্পতিবার (০৪ জানুয়ারি) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে এ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। রাত পৌনে ৯টার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রনে আসে। আগুন নিয়ন্ত্রণে ফায়ার সার্ভিসের চারটি ইউনিট কাজ করছে।
এদিকে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণের কাজ তদারকি করেন যশোরে জেলা প্রশাসক তমিজুল ইসলাম খান। এছাড়া কোতোয়ালী থানার ওসি মনিরুজ্জামানসহ পুলিশ সদস্যরা ঘটনাস্থলে নিরাপত্তায় নিয়োজিত ছিলেন। পরে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার গোলাম রব্বানীর নেতৃত্বে পুলিশের একটি টিম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।
ক্ষতিগ্রস্থরা জানিয়েছেন, কারা সুবেদার ইউনুস আলীর ঘর থেকে অগ্নিকান্ডের সূত্রপাত হয়। একটি গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণ থেকে আগুন ধরেছে। এরপর তা দাবানলের মত ছড়িয়ে পড়ে। ঘর থেকে নারী ও শিশুরা দৌড়ে বেরিয়ে যায়। জীবন বাঁচাতে পারলেও আগুনে তাদের সহায় সম্বল সব পুড়ে গেছে। তারা নিঃস্ব হয়ে গেছেন।
অপর এক ক্ষতিগ্রস্থ জানান, মালামালের সাথে তার নগদ টাকা, স্বর্ণালংকার সব পুড়ে গেছে। কিছুই সাথে করে বের হতে পারেননি। শিশু সন্তানের শীতের পোশাকটিও নেওয়ার সময় পাননি।
অগ্নিকান্ডে সুবেদার ইউনুস আলী, কারারক্ষী আশরাফুল আলম, আমিনুর রহমান, সুমন হোসেন, ফারুজ্জামান রাসেল ও জিয়াউর রহমানের ঘর পুড়ে গেছে।
ফায়ার সার্ভিসের উপ-সহকারী পরিচালক আনোয়ারুল হক জানান, খবর পেয়ে তারা ৪টি ইউনিট নিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আসেন। দীর্ঘ প্রচেষ্টার পর আগুন নিয়ন্ত্রনে নিতে সক্ষম হয়। তবে তার আগেই ৬টি ঘর মালামালসহ ভস্মিভূত হয়ে গেছে। কিভাবে আগুনের সূত্রপাত এবং ক্ষয়ক্ষতি সম্পর্কে তিনি কোন ধারণা দিতে পারেননি।
এদিকে জেলর তুহিন কান্তি খান জানান, ধারণা করা হচ্ছে গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে। ৬টি ঘর পুড়ে ভস্মিভূত হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্থদের রাতযাপন ও খাবারের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। এছাড়া ক্ষয়ক্ষতি নির্ধারণ ও আগুনের সূত্রপাত উদঘাটনে একটি কমিটি গঠন করা হবে বলে জানান তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here